Advertisement

সোলার চার্জিং ও ৬৫ দিনের ব্যাটারি লাইফ সহ লঞ্চ হল Garmin Enduro স্মার্টওয়াচ

10:16 PM Feb 17, 2021 | Anwesha Nandi

সাম্প্রতিক সময়ে স্মার্টওয়াচ ব্যবহারের প্রবণতা বেশ বেড়েছে। প্রায় প্রতি সপ্তাহেই কোনো না কোনো ব্র্যান্ড, এই ধরণের আধুনিক হাতঘড়ি লঞ্চ করছে। সেক্ষেত্রে আজ, বাজারে পা রাখল Garmin Enduro নামের একটি নতুন স্মার্টওয়াচ, যাতে সোলার চার্জিং লেন্সের সাপোর্ট রয়েছে। শুনে অবাক হলেন? তাহলে বলে রাখি এতেই শেষ নয় – এই স্মার্টওয়াচটি ৬৫ দিনের ব্যাটারি লাইফ, মাল্টিস্পোর্ট মোড, ফিটনেস ট্র্যাকিং ইত্যাদি একাধিক সুবিধাজনক ফিচারসহ এসেছে, যা ইউজারদের আধুনিক জীবন যাপনে ব্যাপক সহায়তা করবে। তবে এটি সাধারণ মানুষের জন্য বেশ খানিকটা ব্যয়বহুল হিসেবে বিবেচিত হতে পারে। আসুন এই নতুন Garmin Enduro স্মার্টওয়াচের স্পেসিফিকেশন, দাম এবং লভ্যতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিই।

Advertisement

Garmin Enduro স্মার্টওয়াচের দাম ও প্রাপ্যতা

গারমিন (Garmin)-এর এই নতুন স্মার্টওয়াচের স্টিল ভ্যারিয়েন্টটির দাম ৭৯৯.৯৯ ডলার (ভারতীয় মূল্যে প্রায় ৫৮,৩০০ টাকা) এবং টাইটানিয়াম সংস্করণের মূল্য ৮৯৯.৯৯ ডলার (প্রায় ৬৫,৬০০ টাকা) ধার্য করা হয়েছে। এই মুহূর্তে স্মার্টওয়াচটি নির্মাতা সংস্থার মার্কিনি ওয়েবসাইটে কেনার জন্য উপলব্ধ। যদিও অন্যান্য বাজারে কবে এটি লঞ্চ হবে সে বিষয়ে এখনও কোনো তথ্য প্রকাশিত হয়নি।

Garmin Enduro স্মার্টওয়াচের স্পেসিফিকেশন

প্রথমেই বলে রাখি, এই গারমিন এন্ডুরো স্মার্টওয়াচটিতে ১.৪ ইঞ্চি ট্রান্সফেক্টিভ মেমরি-ইন-পিক্সেল (MIP) ডিসপ্লে রয়েছে, যার স্ক্রিন রেজোলিউশন ২৮০×২৮০ পিক্সেল; এই ডিসপ্লে সহজেই সূর্যের আলোতে দৃশ্যমান হবে। এছাড়া স্মার্টওয়াচটিতে GPS, GLONASS এবং Galileo কানেকশনের জন্য রয়েছে গ্লোবাল নেভিগেশন স্যাটেলাইট সিস্টেম (GNSS) সাপোর্ট। শুধু তাই নয়, এটিতে অ্যালটাইমিটার, ব্যারোমিটার এবং একটি তিন অক্ষ বিশিষ্ট বৈদ্যুতিন কম্পাসও রয়েছে। তাছাড়াও ইউজারের হেল্থ ট্র্যাকিংয়ের জন্য রয়েছে অপটিক্যাল হার্ট রেট টেকনোলজি এবং পালস অক্সিমেট্রি সেন্সর উপলব্ধ।

নির্মাতা সংস্থার মতে, এই স্মার্টওয়াচটি ক্রীড়াবিদ এবং ফিটনেস প্রেমী মানুষদের জন্য বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়েছে। যারা প্রায়ই সাইক্লিং, বাইকিং, দৌড়ানো বা মাউন্টেন ট্রেকিং করে থাকেন তাদের জন্য এই ঘড়িটি অত্যন্ত সহায়ক হবে। কারণ গারমিন এন্ডুরো ইউজারের ওয়ার্কআউটের সময় তো ট্র্যাক করেই, পাশাপাশি এটি স্লিপিং আওয়ার বা রেস্ট টাইমগুলিও রেকর্ড করে। তাছাড়া এতে রয়েছে VO2 Max এবং ClimbPro-র মত দুটি বিশেষ ট্রেনিং মোড-ও। তদুপরি, এটি ইউজারকে স্বাস্থ্য সম্পর্কিত কিছু নির্দেশনাও দিতে সক্ষম বলে জানা গিয়েছে।

অন্যান্য মূল ফিচারের কথা বললে, স্মার্টওয়াচটিতে পাওয়ার গ্লাস নামে একটি বিশেষ সোলার চার্জিং লেন্স রয়েছে যা সূর্যের শক্তি সংগ্রহের মাধ্যমে ডিভাইসটির ব্যাটারির আয়ু বাড়িয়ে তোলে। একবার সম্পূর্ণ চার্জে এটি ৭০ ঘন্টার ব্যাটারি লাইফ (জিপিএস মোড অন থাকা অবস্থায়) সরবরাহ করে। আবার সোলার পাওয়ারের মাধ্যমে এটি টানা ৮০ ঘন্টা চলবে বলে দাবি করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে ইউজাররা এই বিশেষ চার্জিং টেকনোলজির সহায়তায় নিয়মিত ব্যবহারে ৬৫ দিনের ব্যাটারি লাইফ পাবেন। তাছাড়া এর ইনবিল্ট ব্যাটারি সেভার ওয়াচ মোড ব্যবহার করে প্রায় এক বছর পর্যন্ত ব্যাটারি লাইফ বাড়ানো যেতে পারে।

জানিয়ে রাখি, এই স্মার্টওয়াচটি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইফোন উভয়ই ফোনের সাথেই সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং গারমিন কানেক্ট অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে ডিভাইসগুলিকে পরস্পরের সাথে কানেক্ট করা যাবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

শেয়ার করুন
Advertisement