Advertisement

অত্যাধুনিক ফিচার সহ খুব সস্তায় ৩২ ও ৩৯ ইঞ্চি স্মার্ট টিভি এনে তাক লাগিয়ে দিল Daiwa

08:31 PM Feb 17, 2021 | Soumojit Chatterjee

জনপ্রিয় ব্র্যান্ড Daiwa তাদের স্মার্ট টিভির সম্ভারে ৩২ -ইঞ্চি (৮০ সেমি) ও ৩৯ -ইঞ্চির (৯৮ সেমি) স্ক্রিন সাইজের নতুন দুটি বিকল্প অন্তর্ভুক্ত করলো। D32S7B ও D40HDRS মডেল নম্বর বিশিষ্ট Daiwa-র এই দুই স্মার্ট টিভি অ্যালেক্সা সাপোর্টের সাথে এসেছে। এছাড়াও এতে আছে ২০ ওয়াট স্পিকার ও কোয়াড কোর প্রসেসর। ভারতে এই টিভি দুটির বাজারমূল্য যথাক্রমে ১৫,৯৯০ এবং ২১,৯৯০ টাকা রাখা হয়েছে।

Advertisement

যারা জানেন না তাদের জন্য বলে রাখি, Daiwa টেলিভিশনের প্রস্তুতকারক সংস্থা হিসেবে ভিডিওটেক্স ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেডের নাম উঠে আসে। এটি একটি ভারতীয় প্রতিষ্ঠান। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, দেশের যে কোন অগ্রগণ্য রিটেল স্টোরে গিয়ে গ্রাহকেরা টিভি দুটি ক্রয় করতে পারবেন। উল্লেখ্য, নতুন এই দুটি স্মার্ট টিভির সঙ্গেই এক বছরের সম্পূর্ণ ওয়ারেন্টি পাওয়া যাবে। এছাড়া মাই দাইয়া অ্যাপে (My Daiwa App) প্রোডাক্ট রেজিস্টার করলে ক্রেতা টিভি প্যানেলের জন্য আরো এক বছরের অতিরিক্ত ওয়ারেন্টি পেয়ে যাবেন।

Daiwa D32S7B ও D40HDRS স্মার্ট টিভির ফিচার

ফিচারের কথা বললে, Daiwa-র এই দুই স্মার্ট টিভিতে রয়েছে বিল্ট-ইন অ্যালেক্সা সাপোর্ট। এই আধুনিক এআই প্রযুক্তি ক্রেতাদের অসাধারণ ইউজার এক্সপেরিয়েন্স দেবে। আবার টিভির রিমোটের নীচের দিকে রয়েছে মাইক বাটন, যার সাহায্যে ব্যবহারকারী ভয়েস কমান্ডের মাধ্যমে টিভিগুলিকে নির্দেশ প্রদান করতে পারেন। এমনকি ইকো স্মার্ট স্পিকারের মতো অপর কোন অ্যালেক্সা সম্পন্ন ডিভাইস বা অ্যালেক্সা অ্যাপের মাধ্যমে একেবারে হ্যান্ডস ফ্রি উপায়েও এদের নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। সবথেকে বড় ব্যাপার হচ্ছে নতুন স্মার্ট টিভি দুটিতেই হিন্দি সহ একাধিক ভারতীয় স্থানীয় ভাষার সাপোর্ট রয়েছে যা ব্যবহারকারীর মুখের কথা অমান্য করতে পারেনা!

Daiwa স্মার্ট টিভির আরেকটি আকর্ষণীয় দিক হলো এর ‘The Big Wall UI’ ফিচার। এর মাধ্যমে ব্যবহারকারী প্রায় ২৫ লক্ষাধিক ঘন্টার কন্টেন্ট ও Disney Hotstar, Zee5, Sony Liv, Voot সহ অন্যান্য ওটিটি প্ল্যাটফর্মের পরিষেবা অ্যাক্সেস করতে পারবেন। উপরন্তু এতে রয়েছে বিভিন্ন ভাষা ও স্বাদের অসংখ্য চলচ্চিত্রের সঞ্চয়ে পরিপূর্ণ মুভি বক্স অ্যাপ, যা দর্শককে নিরন্তর বিনোদনে ডুবে থাকার রসদ জোগায়। তাছাড়া টিভিগুলি নেটফ্লিক্স, প্রাইম ভিডিও এবং ইউটিউব সাপোর্টের সঙ্গে এসেছে।

এই বিপুল পরিমাণ সামগ্রীর মধ্যে থেকে নিজের মনপসন্দ কন্টেন্ট খুঁজে নিতে তেমন কোন ঝক্কির প্রতিবন্ধকতাও এই টিভিগুলিতে নেই। কেননা Daiwa-র এই স্মার্ট টিভিগুলিতে রয়েছে কন্টেন্ট ডিসকভারি ইঞ্জিন, যার মাধ্যমে মুভি লাইব্রেরী এবং অ্যাপগুলি থেকে খুব সহজেই কন্টেন্ট ব্রাউজ করা সম্ভব। এছাড়া টিভিগুলিতে অটোমেটিক OTA আপডেট সাপোর্ট অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

প্রসেসরের কথা বলতে গেলে, নতুন টিভি দুটিতে রয়েছে এ৩৫ কোয়াড কোর প্রসেসর। এগুলি অ্যান্ড্রয়েড ৮.০ অপারেটিং সিস্টেমের সঙ্গে এসেছে। স্টোরেজের ক্ষেত্রে এতে রয়েছে ১ জিবি র‌্যাম ও ৮ জিবি রম । আবার কানেক্টিভিটির জন্য এগুলিতে থাকছে ৩টি এইচডিএমআই ও ২টি ইউএসবি পোর্ট। তাছাড়াও অডিও ডিভাইসের জন্য ব্লুটুথ এবং স্ক্রিন মিররিংয়ের জন্য এতে ই-শেয়ার ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। এই ই-শেয়ার ফিচার ব্যবহার করে ইউজার নিজের স্মার্টফোনটিকে এয়ার মাউসে রূপান্তরিত করে টিভিগুলি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

সবশেষে বলতে হয়, Daiwa স্মার্ট টিভি ১৩৬৬ x ৭৬৮ পিক্সেল রেজলিউশন সম্পন্ন। এতে কোয়ান্টাম ল্যুমিনিট প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে যা অসাধারণ কালার কনট্রাস্ট অফার করে। তাছাড়া এর ২০ ওয়াট সাউন্ড আউটপুট এবং স্টিরিও বক্স স্পিকারগুলি দর্শকের পাশাপাশি শ্রোতাকেও সন্তুষ্ট করে। সুতরাং সবদিক থেকেই তাদের স্মার্ট টিভিগুলি যে বাজারে ঝড় তুলতে চলেছে, সেই ব্যাপারে Daiwa কর্তৃপক্ষ অনেকটাই আশাবাদী।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

শেয়ার করুন
Advertisement